Sunday, August 10, 2014

স্ট্যাটাস ব্যক্তিগত !

#

তারিখ: ১০ আগস্ট, ২০১৪

রাত ১০.০০টা


আমি উপভোগ করি আমার দায়িত্ব ও কাজকে। আমি চেষ্টা করি দায়িত্ব ও কাজকে সঠিকভাবে করতে। মনেপ্রাণে বাস্তব কাজের সাথে সম্পৃক্ত থেকে নিজের দায়িত্ব ও কর্তব্য পালন করতে চেষ্টা করি। এর্বং এই দায়িত্ব ও কর্তব্যবোধ কোনো ব্যক্তিক স্বার্থ চেতনাকে প্রশ্রয় না দিয়েই তা করার চেষ্টা করি। তবে এটা বলা যায় যে, কাজের মধ্যে ভুলচুক থাকা স্বাভাবিক। তবে চেতনে বা চেয়েশুনে ভুল করা থেকে বিরত থাকাতেই সবসময় চিন্তা ও দৃষ্টি থাকে এটা বলা যায়।


যে কাজ করছি...

যে কাজ করছি তা জনগণের সাথে, পার্বত্য চট্টগ্রমের জনগণের সাথে সম্পৃক্ত। বাস্তব কাজে, বাস্তবে জনগণের সাথে আছি, এই আনন্দবোধ যেমন সারাক্ষণ মনকে চাঙ্গা করে রাখে, তেমনি জনতার সাথে থাকতে থাকতে নানা কিছু দেখার জানার অভিজ্ঞতা অর্জনেরও সুযোগ থাকে নিশ্চয়!

আমি মফস্বল শহরে বড় হওয়া এক ....

জীবনের প্রথম বাক কেটেছে খাগড়াছড়ি জেলা সদরের মফস্বলে আধাগ্রাম আধা শহর ধাচের এক জায়গায়। কখন যে সময় পেরিয়ে রাজনৈতিক জীবনেে এসেছি তা বুঝতেই পারিনি! এবং এতে দেখতে দেখতে কেটে গেল দশক-যুগ!

গ্রামের ‘ভিলেজ পলিটিক্স’-এর এক অনভিজ্ঞ মানুষ আমি!


গ্রামে যারা থাকে তারা জানেন, না জানলে অনুভব করেন, ভিলেজ পলিটিক্স কাকে বলে বা কতো প্রকার! আমি সেই ‘ভিলেজ পলিটিক্স-এর ’অ আ ক খ’ না জানা এক মানুষ। এখন যখন, দায়িত্ব ও কর্তব্যের কারণে সেই ‘ভিলেজ পলিটিক্স’র দেখা পাচ্ছি, এবং তার  ’একই অঙ্গে এত রূপ’ দেখতে পাচ্ছি, তখন একদিকে শিহরিত হচ্ছি(!) নুতন কিছু দেখে, অভিজ্ঞতার ঝুলিতে নতুন কিছু ভরাতে পেরে আমোদিত, বিম্বিত হচ্ছি নিশ্চয়ই আরো আরো অনেক বেশি!


ভিলেজ পলিটিক্স কী এবং কী ধরণের?
এই ভিলেজ পলিটিক্স-এর পাকে পঙ্কে ডুবে ছিল জেএসএস অথবা জেএসএস এর লড়াইয়ে ভিলেজ পলিটিক্স নানাভাবে প্রভাব বিস্তার করে ছিল বৈকি! স্থানীয় নানা ধরণের কাজের সময় বা দৈনন্দিন নানা কার্যক্রমের সময় ভিলেজ পলিটিক্স নিশ্চয়ই নানাভাবে নাড়িয়ে দিয়েছিল জেএসএস শসস্ত্র লড়াইকালীয় রোমাঞ্চিত যুগে!

ভিলেজ পলিটিক্স কী ও কেমন তা বোঝানোর সাধ্য কি আমার রয়েছে!

শুধু বলা যায়, ভিলেজ পলিটিক্স হলো সুক্ষ কারিবিদ্যা যা ব্যবহার করা হয়, গ্রামে প্রভাব বিস্তারের জন্য, অন্যকে বা শত্রু বা বিরোধী পক্ষকে কাবু করার জন্যও তা ব্যবহৃত হয়।

 এতে সংগঠনকে বা সংগঠনের নেতৃত্বকে সুকৌশলে ব্যবহার করা হয় যেন ঐ দায়িত্ববান ব্যক্তিও জানতে না পারেন যে তিনি ব্যবহৃত হচ্ছেন!

গ্রামের নেতৃত্ব এই ভিলেজ পলিটিক্স ক্ষমতাকে পোক্ত কর তে ব্যবহার করতে পারেন, জমিজিরাত দখল করতে, কোনো বিচার বা শালিশকে নিজের পক্ষে আনার জন্যও এর ব্যবহার রয়েছে। সংক্ষেপে এমন কী নেই যাতে ভিলেজ পলিটিক্স ব্যবহার করা হয় না!

এমনকি অন্য গ্রামের সাথে সংঘর্ষেও তার ব্যবহার রয়েছে! নির্বাচনে বিজয়ী হতেও তার ব্যবহার রয়েছে।

এই ভিলেজ পলিটিক্স এর কারণে পার্বত্য চট্টগ্রামের রাজনৈতিক লড়াই সংগ্রাম যে কতো ধারা উপধারায় ক্ষতিগ্রস্ত প্রভাবগ্রস্ত শাপগ্রস্ত হয়েছে তার ইয়ত্তা তো দেবার সাধ্য নেই!

এই ভিলেজ পলিটিক্স ভ্রাতৃঘাতি সংঘাতকেও প্রলম্বিত করছে
নানাভাবে ভ্রাতৃঘাতি সংঘাতকে প্রলম্বিত করছে এই ভিলেজ পলিটিক্স বা পলিট্রিক্স।

সংক্ষেপে এ্টাই আমার আজকের স্ট্যাটাস।
 সকল শুভাকাংখী স্নেহাস্পদ শ্রদ্ধাস্পদ অন্তর্জাল বন্ধুদের প্রতি আহ্বান, ভিলেজ পলিটিক্সের ফাদে পা দেবেন না!
সামগ্রিকভাবে সমাজের অকল্যান সাধন হয় এমন কোনো কিছুতে নিজেকে জড়াবেন না! বা ভিলেজ পলিটিক্সের পঙ্কিলে ডুববেন না!

No comments:

Post a Comment