Saturday, March 9, 2013

বিজয়ের বার্তা বহনের সামর্থ্য অর্জনের জন্য ইউপিডিএফের ম্যারাথন রেস

'nenikekamen'
We Won!

(এক)

পূর্নস্বায়ত্তশাসনের জন্য ম্যারাথন।
লড়াইয়ে বিজয় অর্জনের জন্য ম্যারাথন।
অধিকার আদায়ের জন্য ম্যারাথন।

(দুই)

ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট 'পূর্ণস্বায়ত্তশাসনের জন্য ম্যারাথন ২০১৩' এই শ্লোগানকে ভিত্তি করে ম্যারাথন রেসের আয়োজন করেছে। খাগড়াছড়িতে এই কর্মসূচির আয়োজন করা হয়েছে। পানছড়ি উপজেলা থেকে খাগড়াছড়ি জেলাসদরের স্বনির্ভর বাজার পর্যন্ত মোট ২৩ কিলোমিটার পথ হচ্ছে এই ম্যারাথন রেসের দুরত্ব। পার্টি গঠনের পূর্বে বর্তমান ইউপিডিএফএর নেতৃবৃন্দ ও তিন গণতান্ত্রিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ১৯৯৭ সালের ১০ মার্চ ঢাকায় এক সমাবেশ করে পার্বত্য চট্টগ্রামে পূর্ণস্বায়ত্তশাসনের ঘোষণা দিয়েছিলেন। সেই দিবসটি উপলক্ষ করেই ইউপিডিএফ এই ম্যারাথন রেসের আয়োজন করেছে।

ইউপিডিএফকে ধন্যবাদ ম্যারাথন রেসের মতো একটি কর্মসূচি গ্রহণ করার জন্য।

(তিন)

খ্রিস্টপূর্ব ৪৯০ অব্দে Pheidippides নামে এক গ্রীক বার্তাবাহক ম্যারাথন নামক যুদ্ধ ময়দান থেকে না থেমে দৌড়ে এসেছিলেন জয়ের খবর এথেনসের জনগনকে জানাবার জন্য। দৌড় দিয়ে আসার সময় তিনি জানিয়ে আসছিলেন বিজয়ের বার্তা, আমরা জিতেছি, আমরা জয় করেছি, উই ওন(WE WON!), Nenikekamen!

আধুনিক যুগে অলিম্পিকে ম্যারাথন একটি খেলা হিসেবে অন্তর্ভূক্ত হয় ১৮৯৬ সালে। ম্যারাথন রেসের জন্য অফিসিয়ালি ৪২.১৯৫ কিলোমিটার পর্যন্ত দৌড়াতে হয়।

পুরুষদের পাশাপাশি নারীরাও ম্যারাথন রেসে অংশ নিয়েছে প্রথম থেকে।

(চার)

পার্বত্য চট্টগ্রামে ইউপিডিএফএর উদ্যোগে যে ম্যারাথন রেসের সূচনা করা হলো তার তাৎপর্য আগামীতেই জানা যাবে।

তবে যুদ্ধ ময়দান থেকে যে তেজ-শক্তি-শৌর্য-বিজয়ের বার্তা ওই গ্রীক বার্তাবাহক জানিয়েছিলেন তারই মতো আমাদের পার্বত্য চট্টগ্রামের যুব সমাজ যেদিন সেই বিজয়ের বার্তা বহন করার মতো সামর্থ্য অর্জন না করবে ততদিন বিজয়-অধিকার-পূর্নস্বায়ত্তশাসন-স্বায়ত্তশাসন যেন অধরাই থাকে!
সেদিনের অপেক্ষায় থাকি আমরা যেদিন বলতে পারবো NENIKEKAMEN! WE WON!

No comments:

Post a Comment