Tuesday, July 22, 2014

রাঙামাটির সাজেকবাসীর জায়গা জমি রক্ষার সংগ্রামে শরীক হোন!

জায়গা জমি রক্ষার সংগ্রামে শরীক হোন!
সাজেকের রাতের খবর(২২ জুলাই, ২০১৪)
সারাদিন আজ বাঘাইছড়ি প্রশাসন তথা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুমন চৌধুরী পুলিশ বাহিনীর বিশাল ফোর্স নামিয়ে দিয়ে সাজেকের উজো বাজারের জনতাকে বুদ্ধ মূর্তি নির্মাণে বাধা দিতে যথাসাধ্য চেষ্টা চালিয়ে গিয়েছে।
এভাবে জনগণকে বুদ্ধমূর্তি নির্মাণের ক্ষান্ত রাখতে না পেরে বিকাল থেকে দীঘিনালা-বাঘিইছড়ি থেকে পুলিশ আর্মি ফোর্স (সংখ্যা আনুমানিক ২০০/২৫০)এনে উজো বাজারে কাছে জমায়েত করে রেখেছে।
এখন রাত আটটার দিকে ৩০/৪০ জনের আর্মির একটি দল উজো বাজারে মহড়া দিচ্ছে।
জনগণ এখনো উজো বাজারের কাছে যেখানে বুদ্ধমূর্তি নির্মাণ করার কথা সেখানে জড়ো হয়ে অবস্থান করছে।
যারা অধিকার আদায়ের লড়াইয়ে শরীক হতে চান- যারা লড়াই সংগ্রাম করে মাথা উচু করে বাচতে চান- তাদের অনুরোধ-আহ্বান- যে যেখানেই থাকুন না কেন, সাজেকবাসীর সাথে থাকুন, তাদের পাশে দাড়ান-বিভিন্ন স্থানে মিছিল মিটিং সভা সমাবেশ প্রতিবাদ কর্মসূচির আয়োজন করুন!
জায়গা জমি রক্ষার সংগ্রামকে উৎসাহিত করুন!

3 comments:

  1. আজ ২৩ জুলাই প্রশাসন আলোচনার আহ্বান জানিয়েছে।

    ReplyDelete
  2. সাজেক আপডেট:

    ২৩ জুলাই, ২০১৪

    বাঘাইছড়ি প্রশাসন বুদ্ধমূর্তি স্থাপন বিষয়ে আলোচনার আহ্বান জানিয়েছে।
    সারারাত জেগে থাকার পর এখন জনগণ কিছুটা ক্লান্ত শ্রান্ত।
    চারদিক থেকে ফেসবুক লাইক সংহতি যেমন চাই
    তেমনি বাস্তবিক রাজপথের লড়াইয়েও সকলেল ভূমিকা আশাকরি।

    ReplyDelete
  3. সাজেক আপডেট:
    তারিখ: ২৩ জুলাই, ২০১৪
    সকাল ৮.০০ টা

    বাঘাইছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুমন চৌধুরি সকালের দিকে উজো বাজারে আসবেন। তিনি বুদ্ধমূর্তি স্থাপন নিয়ে গণমান্য ব্যক্তিগণের সাথে মতবিনিময় করবেন।
    কিন্তুেএদিকে খবর পাওয়া গেছে আর্মি ও পুলিশের টহল বাড়ানো হয়েছে।
    প্রশাসন বুদ্ধমূর্তি স্থাপনের কর্মসূচি ও জনগণের শান্তিপূর্ণ অবস্থানকে ভিন্নদিকে প্রবাহিত করতে পারে বলে খবর পাওয়া যাচ্ছে।

    বাবুছড়াকান্ডের মতো কোনো কান্ড ঘটিয়ে ১৪৪ ধারা জারিরও উদ্যোগ নিতে পারে প্রশাসন।
    একইসাথে রিজার্ভ ফরেস্টে পাহাড়িরা অবৈধভাবে বসবাস করছে এই ধুয়ো তুলে প্রশাসন সাধারণ জনগণকে হয়রানী করার জন্য মামলা হামলার ব্যবস্থা নিতে পারে।

    কিন্তু সাজেকের জনগণ সতর্ক সজাগ!

    সাজেকেবাসীর সাথে সহমর্মি হোন!

    সাজেকবাসীর শান্তিপূর্ণ গণতান্ত্রিক কর্মসূচির সাথে শরীক হোন!
    সাজেকের গণতান্ত্রিক লড়াইকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার চেষ্টা সফল করতে দেবেন না!!

    যেখানেই থাকুন না কেন জুম্ম ধ্বংসের চক্রান্তের বিরুদ্ধে কর্মসূচি ঘোষনা করুন!

    ঢাকা চট্টগ্রাম খাগড়াছড়ি রাঙামাটি বান্দরান দেশ বিদেশ সর্বত্র বিক্ষোভ মিছিল সমাবেশের কর্মসূচি ঘোষনা করুন!

    ReplyDelete